আজ ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

https://jatiyobarta.com/wp-content/uploads/2020/12/হাতে-কুরআন-লিখে-কৃতিত্ব-গড়লেন-বৃদ্ধা-নারী.jpg
হাতে কুরআন লিখে কৃতিত্ব গড়লেন বৃদ্ধা নারী!

হাতে কুরআন লিখে কৃতিত্ব গড়লেন মিসরের বৃদ্ধা নারী!

বার্ধক্যের অবসর সময়ে নিরলস পরিশ্রম করে হাতে পুরো কুরআন লিখে কৃতিত্ব গড়লেন ৭৫ বছরের বৃদ্ধা নারী সুয়াদ আব্দুল কাদের। কারো সাহায্য ছাড়াই চার বছরের অক্লান্ত পরিশ্রমে পুরো কুরআন হাতে লিখে এ কৃতিত্ব অর্জন করেন এ নারী। মিসরের গণমাধ্যম দেশটির তরুণ-তরুণীদের জন্য এ নারীকে ‘অনুপ্রেরণাদানকারী’ নারীর ম’র্যাদা দেয়ার দাবি তুলেছে।সুয়াদ আব্দুল কাদের মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া শহরে বসবাসকারী একজন নারী।

যখন তিনি পবিত্র কুরআন হাতে লেখার কাজ শুরু করেন তখন তার বয়স ৭১ বছর। এ বয়সে তিনি পুরো কুরআন হাতে লেখার কাজ শুরু করেন। সুয়াদ ভাবনা যে, জীবনের শেষ মুহূর্তে তিনি ভালো কিছু স্ম’রণীয় কাজ করে সময় অ’তিবাহিত করবেন, যা তার জন্য আল্লাহর কাছে মুক্তি ও নাজাতের ওসিলা হবে।

তা ভেবেই তিনি প্রতিদিন কুরআন লেখার কাজে নিয়মিত ৬-৮ ঘণ্টা সময় ব্যয় করেন।সুয়াদ যে সময়টিতে কুরআন লিখতেন, এ সময়টিই তার কাছে সেরা। কারণ সে সময়টি ছিল তার কাছে সেরা অন্যায়-অ’প’রাধমুক্ত সময়। ধ’র্মের প্রতি তার এ অনুভূতি থেকেই অসামান্য কাজ করে সফল হয়েছেন সুয়াদ আব্দুল কাদের।

Advertisements

বৃদ্ধা সুয়াদের নাতি মুহাম্মাদ ওসামা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তার দাদি ৭১ বছর বয়সে কুরআন লেখা শুরু করেন। আলহাম’দুলিল্লা! ৭৫ বছর বয়সে এসে কারো সাহায্য ছাড়া নিরলস পরিশ্রমে তিনি হাতে পুরো কুরআন লেখা সম্পন্ন করেছেন।’ ওসামা আরও বলেন, ‘মহান আল্লাহর একান্ত অনুগ্রহ যে, তার দাদির প্রাতিষ্ঠানিক পড়ালেখা করার কোনো অ’ভিজ্ঞতা ছিল না।

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই তিনি পুরো কুরআন লেখার কাজটি হাতে লিখেছেন। এটি মহান আল্লাহর একান্ত অনুগ্রহ।’জীবনের শেষ সময়ে বৃদ্ধা নারী সুয়াদের এ কাজ দুনিয়ার সব নারীর জন্য অনুপ্রেরণা। মিসরের গণমাধ্যমগুলো ৭৫ বছরের সুয়াদকে সরকারের পক্ষ থেকে দেশটির তরুণ-তরুণীদের জন্য ‘অনুপ্রেরণাদানকারী’ নারীর ম’র্যাদা দেয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ