আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সুশান্তের গলায় ১৫ থেকে ২০টা সুচের চিহ্ন ছিল, পা ভেঙে পিছনে মোড়ানো ছিল

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর আড়াই মাস পার হলেও এখনও মেলেনি কোন সুরাহা। তবে সিবিআই তদন্তের ভার নেয়ার পর বেরিয়ে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। সুশান্তের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছিল মুম্বাইয়ের কুপার হাসপাতালে। সেখানকার এক স্বাস্থকর্মীর বক্তব্যে ফের চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ওই কর্মী সুশান্তের বডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় থেকে মরদেহ শশ্মানে নিয়ে যাওয়া পর্যন্তই ছিলেন সঙ্গে।

তার কথায়, এটা খুনই ছিল। সুশান্তের শরীরে সুই ফোটানোর চিহ্ন ছিল। গলায় ১৫ থেকে ২০টা সুইয়ের চিহ্ন ছিল। এমনকি গলায় এক জায়গায় সেলোটেপ লাগানো ছিল। পা ভাঙা ছিল।

ওই কর্মচারীর দাবি এটা খুন ছিল। অনেক ডাক্তারাও বলাবলি করছিলেন যে এটা খুন।

Advertisements

ওই ব্যক্তি আরও বলেন, বডি দেখেই তার মনে হয়েছিল এটা আত্মহত্যা নয়। তবে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট দেখে তিনিও অবাক হয়েছিলেন। এই ব্যক্তিই দেখেছিলেন হাসপাতালে রিয়া এসে সুশান্তের কাছে ক্ষমা চাইছে।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ