আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সিনহা খুনের বিচার না হলে গণআদালত: মান্না

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান খুনের বিচার না হলে গণআদালত গঠনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল ও মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে এই হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

মান্না বলেন, “বিচার যদি তারা (সরকার) না করে, তাহলে আমরা বিচার করব। দরকার লাগলে এই প্রেস ক্লাবের সামনে গণআদালত বসবে।”

Advertisements

একই কর্মসূচিতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন আহমদ বলেন, “আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, সিনহার হত্যার প্রতিবাদ চলবে। যদি এই সরকার সিনহা হত্যার বিচার না করে জনতার আদালতে ইনশাল্লাহ তাদের বিচার করব।”

গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা। এই ঘটনা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে। সরকারের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের।

বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে মান্না বলেন, “বিচার ওরা (সরকার) করবে না। কারণ এই পুলিশকে দিয়ে দুই বছর আগে ভোটের নামে আগের রাত্রে সব ব্যালট কেটেছে না, এই পুলিশকে ঘুষ দিয়েছে না, এই পুলিশকে রাতের বেলা বিরানি খাওয়াইছে না। পুলিশের দোষ কী?

“আমাদের লড়াই পুলিশ বাহিনীর বিরুদ্ধে নয়, আমাদের লড়াই সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে নয়, আমাদের লড়াই এই সবগুলো বাহিনীকে যারা দুর্বৃত্তায়িত করেছে সেই সরকারে বসে আছে যে দল, আমাদের লড়াই তাদের বিরুদ্ধে।”

সাবেক সেনা কর্মকর্তা হাফিজ বলেন, “আমি প্রদীপ দাশ (টেকনাফের সাবেক ওসি) ও লিয়াকতকে (পুলিশ পরিদর্শক) যতখানি দোষী মনে করি, তার চাইতে বেশি দোষী এই আওয়ামী লীগের সরকার। তারা গদি টিকিয়ে রাখার জন্য পুলিশকে লাইসেন্স দিয়েছে।”

তিনি বলেন, “আমরা আশা করব, প্রধানমন্ত্রী যে কথা বলেছেন এটির (সিনহা হত্যা) সুষ্ঠু বিচার হবে। যদি সুষ্ঠু বিচার না হয়, আমরা তাহলে তাকেই দায়ী করব।”

শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি

দেশে এ পর্যন্ত সংঘটিত বিচারবহির্ভূত সব হত্যাকাণ্ডের শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানান মান্না।

তিনি বলেন, “এই পর্যন্ত সারা বাংলাদেশে হাজারো মানুষকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে, হাজারো মানুষ গুম হয়ে আছে।

“আমি প্রথম দাবি করি, এই পর্যন্ত যাদেরকে হত্যা করা হয়েছে তাদের শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হোক। এই হত্যার জন্য কারা দায়ী সে সম্পর্কে জনগণকে জানানো হোক, কতগুলো মানুষ এখন পর্যন্ত গুম হয়ে আছে তাদের তালিকা প্রকাশ করা হোক। কোন কোন বাহিনী এজন্য দায়ী তাদের অফিসারদের ও তাদের জড়িত লোকগুলোকে শাস্তি দেওয়া হোক।”

“আমরা সিনহা হত্যা বিচার চাই, সমস্ত হত্যার বিচার চাই। যত মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে তার বিচার চাই,” বলেন মান্না।

বিএনপি নে তা হাফিজ বলেন, “অপেক্ষা করুন। এই হত্যাকারী, দুর্নীতিবাজ, অবৈধ সরকারের কী পরিণতি হয় সারা বিশ্বের মানুষ সেটা দেখবে।”

‘স্বাস্থ্যমন্ত্রী একটা চিজ’

করোনাভাইরাস আপনা আপনি চলে যাবে- স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের এই বক্তব্য নিয়ে তাকে কটাক্ষ করেন মান্না।

“আমাদের দেশে একজন স্বাস্থ্যমন্ত্রী আছেন একটা চিজ। তাকে আপনি জাদুঘরে রেখে দিতে পারবেন। উনি দুই দিন আগে বলেছেন, ভ্যাকসিন দরকার হবে মনে হয় না। কারণ আমাদের দেশে এসে ভাইরাস না কি অটোমেটিক্যালি মারা যায়। এত ‍বড় মূর্খরা দেশের সরকার চালায়, মন্ত্রী হয়।”

মান্না বলেন, “স্বাস্থ্য গেছে, বিচার ব্যবস্থাকে আগেই হাইজাক করা হয়েছে। আর এখন অর্থনীতির গায়ে হাত দিয়েছে।

“কয়েকদিন তারা আগে বলেছেন, আমাদের দেশের অর্থনীতির উন্নতি হচ্ছে কারণ আমাদের জিডিপি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারা জিডিপির এক কাহিনী খুব চালু করবার চেষ্টা করে। এভাবে তারা মিথ্যাচার করে মানুষকে ধোঁকা দেয়।”

মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি সৈয়দ ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সস্পাদক সাদেক আহমেদ খানের পরিচালনায় মানববন্ধনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক জয়নুল আবেদীন, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, নির্বাহী কমিটির সদস্য সারোয়ার হোসেন, ইশরাক হোসেন ও ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বক্তব্য রাখেন।

 

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ