আজ ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

https://jatiyobarta.com/wp-content/uploads/2020/11/শ্বাসনালিতে-বাদাম-প্রাণ-বাঁচাতে-আড়াইশ-কিলোমিটার-পথ-পাড়ি.jpg
শ্বাসনালিতে বাদাম প্রাণ বাঁচাতে আড়াইশ কিলোমিটার পথ পাড়ি

শ্বাসনালিতে বাদাম, প্রাণ বাঁচাতে আড়াইশ কিলোমিটার পথ পাড়ি

এক বছর তিন মাসের শিশুর শ্বাসনালীতে একটি চীনাবাদাম আটকে গিয়েছিল। যদিও শ্বাসনালিতে আটকে থাকা ওই বাদাম বের করা হয়েছে। তবে বাঁচার জন্য আড়াইশ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে হয়েছে তাকে। 

আনন্দবাজার  একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ভারতের মুর্শিদাবাদের বাগডাঙায় এ ঘটনা ঘটে। শিশুটির শ্বাসনালি থেকে বাদাম বার করেছে এসএসকেএমের ‘ইনস্টিটিউট অব ওটোরাইনোল্যারিঙ্গোলজি’র চিকিৎসকরা। বর্তমানে শিশুটিকে হাসপাতালের পেডিয়াট্রিক ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (পিকু) রাখা হয়েছে। কয়েকদিন পর্যবেক্ষণের পর তাকে ছেড়ে দেয়া হবে।

চিকিৎসকরা বলছেন, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে যখন আশিক সরদারকে নিয়ে আসা হয়, ততোক্ষণে শিশুটির ছোট্ট শরীর নীল হয়ে গিয়েছিল। দ্রুত অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। 

Advertisements

আরও পড়ুন>>> ৮ বছরের জমানো স্বপ্ন পুড়ে নিঃস্ব বৃদ্ধ রিকশাচালক

এক্স-রে করে চীনাবাদামের অবস্থান বুঝে নিতে যেটুকু সময় লেগেছিল, তারপর আর অপেক্ষা করেননি তারা। ব্রঙ্কোস্কোপি করে ফরসেপের সাহায্যে শিশুর শ্বাসনালির ডান ও বাঁ ব্রঙ্কাস থেকে বের করে আনা হয় বাদাম। 

২৫ মিনিটের ওই অস্ত্রোপচারের নেতৃত্বে ছিলেন প্রফেসর-চিকিৎসক অরুণাভ সেনগুপ্ত। চিকিৎসক দলে ছিলেন সায়ন হাজরা ও দেবাশিস ঘোষ। 

আরও পড়ুন>>> একসঙ্গে ৬ গর্ভবতী স্ত্রীকে নিয়ে বিয়ের আসরে হাজির স্বামী!

অরুণাভ বলেন, গলা দিয়ে টিউবের মাধ্যমে ব্রঙ্কোস্কোপ যন্ত্র ঢুকিয়ে ফরসেপের সাহায্যে ডান ও বাঁ দিকের ব্রঙ্কাস থেকে দুই টুকরা হয়ে যাওয়া বাদামটি বের করা হয়েছে। দু’টি ব্রঙ্কাসেই বাধা তৈরি হওয়ায় শিশুর শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা হু হু করে নামছিল। সেটি মারাত্মক ঝুঁকির।

আরও পড়ুন>>> হানিমুন শেষে এসেই চমক,কেঁদে ভাসালেন নেহা, প্রতিযোগীকে দিলেন ১ লাখ টাকা(ভিডিও)

চিকিৎসকরা জানান, শিশুদের শ্বাসনালিতে খাবার আটকানোর ঘটনা প্রায়ই ঘটে। বড়দের শ্বাসনালিতে আটকে যাওয়া জিনিস বের করার ব্যবস্থা প্রায় সর্বত্র রয়েছে। কিন্তু শিশুদের ক্ষেত্রে যন্ত্র বলতে প্রয়োজন, মূলত পেডিয়াট্রিক ব্রঙ্কোস্কোপ ও ফরসেপ। যা দুর্লভও নয়। তবে ঝুঁকি বেশি থাকায় সদিচ্ছার অভাব রয়েছে।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ