আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাশিয়ার করোনার টিকা নিয়ে ‘গুরুতর অনিয়মের’ অভিযোগ, পদত্যাগ স্বাস্থ্য কর্মকর্তার

রাশিয়ার তৈরি করোনার টিকা তৈরিতে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নৈতিকতার ‘গুরুতর লঙ্ঘন’ হওয়ার অভিযোগ এনে দেশটির এক শীর্ষ চিকিৎসা কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছেন। অধ্যাপক আলেক্সান্ডার চুচালিন দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নৈতিকতাবিষয়ক পরিষদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। শুধু পদত্যাগ করেই ক্ষান্ত হননি শ্বাসতন্ত্রের এই চিকিৎসক, রাশিয়ার তৈরি‘স্পুটনিক ৫’ তৈরি নিয়েও গুরুতর সব অনিয়মের কথা বলেছেন। খবর বিজনেস টুডে ও টাইমস নাউ নিউজ ডট কমের।

রাশিয়ায় চিকিৎসাবিষয়ক যাবতীয় নীতি নির্ধারণ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা এই এথিকস কাউন্সিল বা নৈতিকতাবিষয়ক পরিষদ। সেই পরিষদের অন্যতম সদস্য ছিলেন চুচালিন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত মঙ্গলবার বলেন, তাঁর দেশই প্রথম করোনার টিকা তৈরি করেছে। পুতিন করোনার টিকা সম্পর্কে বলেন, রাশিয়া যে টিকা তৈরি করেছে, তা স্থায়ী বা টেকসই প্রতিরোধী সক্ষমতা দেখাতে সক্ষম। বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, রাশিয়ায় মন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিও সম্মেলনে পুতিন টিকার তথ্য জানান। ওই ভিডিও সম্মেলন টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়।

Advertisements

তবে রাশিয়ার দাবি করা এই টিকা নিয়ে পশ্চিমা বিশেষজ্ঞসহ অনেকেই সন্দেহ পোষণ করেন। একটি গ্রহণযোগ্য টিকা তৈরিতে যেসব ধাপ অতিক্রম করতে হয়, এর অনেক কিছুই করা হয়নি বলে সমালোচনা শুরু হয়। যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাউসি রাশিয়ার টিকা কতটা নিরাপদ ও কার্যকর হতে পারে, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন।

এবার রাশিয়ার ভেতর থেকেই অভিযোগ উঠল। অধ্যাপক আলেক্সান্ডার চুচালিন সুনির্দিষ্টভাবে টিকা তৈরিতে যুক্ত দুই বিশেষজ্ঞের নাম উল্লেখ করে সরাসরি তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এই টিকা তৈরি করেছে মস্কোর গ্যামালিয়া রিসার্চ সেন্টার। এই সংস্থার পরিচালক আলেক্সান্ডার গিন্টসবার্গ এবং দেশের ভাইরোলজি বিশেষজ্ঞদের অন্যতম সের্গেই বরিসেভিচের নাম করে চুচালিন বলেছেন, এই দুই চিকিৎসক টিকা তৈরিতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নিয়মনীতির তোয়াক্কা করেননি।

চুচালিন ওই দুই বিশেষজ্ঞের উদ্দেশে বলেন, ‘রুশ সরকারের সব নিয়মনীতি কি আপনারা মেনেছেন? আন্তর্জাতিক বিজ্ঞানী সম্প্রদায়ের মতামত নিয়েছেন? নেননি।’

চুচালিন বলেন, এটা ঠিকভাবে করা হয়নি। নৈতিকভাবে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নীতি ভঙ্গ করা হয়েছে।

অধ্যাপক চুচালিন বলেন, ‘আমাদের কিছু বিজ্ঞানী যে অবস্থান নিয়েছেন এবং যেভাবে এই রেডিমেড টিকা নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো মন্তব্য করছেন, তাতে আমি হতাশ।’

পদত্যাগের কিছু আগে রাশিয়ার বিজ্ঞান সাময়িকী নওকা আই জিনে (স্যায়েন্স অ্যান্ড লাইফ) দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চুচালিন বলেন, ‘কোনো টিকা বা ওষুধের বিষয়ে আমরা নৈতিকতার পর্যবেক্ষণ যারা করি, তারা প্রথমে দেখা চেষ্টা করি এটা মানুষের জন্য কতটা নিরাপদ। নিরাপত্তাই প্রথম বিচার্য বিষয়। এটা কেমন করে নির্ধারণ করা হবে। যেসব টিকা এখন তৈরি করা হয়েছে, সেগুলো তো মানুষের ওপর প্রয়োগ করা হয়নি। একটা মানুষ এটাতে কতটুকু নিতে পারবে, তা তো আমরা বলতে পারি না।’

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ