আজ ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাচ্ছে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’

যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাচ্ছে নির্মাতা রুবাইয়াত হোসেন পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘মেড ইন বাংলাদেশ’।

শুক্রবার দেশটির ৪০টিরও বেশি সিনেমা হলে ছবিটি মুক্তি পাবে বলে নির্মাতার তরফ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

তবে হলে বসে নয়, সিনেমা হলের টিকেট কাটলে ভার্চুয়ালি ছবিটি দেখতে পাবেন দর্শকরা। এবছরের মুক্তি প্রতীক্ষায় থাকা ছবিগুলোর ‘ভার্চুয়াল থিয়েটার রিলিজ’ দিতে শুরু করেছে যুক্তলাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশের সিনেমা হলগুলো।

Advertisements

বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নে ও আত্মনির্ভরশীলতা অর্জনে পোশাকশিল্পের যে ভূমিকা তার আলোকে দৃঢ়চেতা নারী পোশাকশ্রমিকদের সংগ্রাম ও সাফল্যের গল্প বলা হয়েছে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ চলচ্চিত্রে।

টরন্টো চলচ্চিত্র উৎসবে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ারের পর ছবিটির ইউরোপিয়ান প্রিমিয়ার হয় বিএফআই লন্ডন চলচ্চিত্র উৎসবে। এছাড়াও বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সমাদৃত ও পুরস্কৃত হয়েছে ছবিটি।

এটি ইতালির তোরিনো চলচ্চিত্র উৎসবে ‘প্রিমিও ইন্টারফেদি’ পুরস্কার, ফ্রান্সের এমিয়েন্স আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জুরি ও দর্শক পুরস্কারসহ তিনটি পুরস্কার, আফ্রিকান ডায়াস্পোরা চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শক পুরস্কার, ট্রমসো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে নরওয়েজিয়ান পিস এওয়ার্ড, ফ্রান্সের সেইন্ট-জঁ-ডি-লুজ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী পুরষ্কার অর্জন করে।

সম্প্রতি লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসবে ‘থ্রু দ্য ওপেন ডোরস’ এর  ওপেনিং ফিল্ম হিসাবে প্রদর্শিত হয় মেড ইন বাংলাদেশ। 

গত বছরের ডিসেম্বরের ৪ তারিখে ফ্রান্স, ডেনমার্ক এবং পর্তুগালের ৭০টি সিনেমা হলে বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি পায় মেড ইন বাংলাদেশ।

এরপর ফ্রান্সে করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত টানা চৌদ্দ সপ্তাহ ধরে শতাধিক সিনেমা হলে প্রদর্শিত হয়। মহামারীর কারণে অন্যান্য দেশের নির্ধারিত রিলিজ বাতিল হলেও এখন সেগুলোর ভার্চুয়াল থিয়েটার রিলিজ হচ্ছে।

ইতোমধ্যেই কানাডায় মুক্তি পেয়েছে ছবিটি এবং শিগগিরই জাপান, চায়না, পোল্যান্ডসহ অন্যান্য দেশেও মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এছাড়াও ফ্রান্সের কেনাল ভিডিও এবং অরেঞ্জ প্লাটফর্ম ও অস্ট্রেলিয়ার স্টান ইতোমধ্যেই ছবিটি ভিওডি প্লাটফর্মে মুক্তি দিয়েছে।

বাংলাদেশেও মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা চলছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন ছবির পরিচালক রুবাইয়াত হোসেন।

ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন রিকিতা নন্দিনী শিমু, নভেরা হোসেন, দীপান্বিতা মার্টিন, পারভীন পারু, মায়াবি মায়া, মোস্তফা মনোয়ার, শতাব্দী ওয়াদুদ, জয়রাজ, মোমেনা চৌধুরী, ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও সামিনা লুৎফা প্রমুখ। দুটি অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিতা চৌধুরী ও ভারতের শাহানা গোস্বামী।

ছবিটির প্রযোজক ফ্রঁসোয়া দক্তেমা ও আশিক মোস্তফা এবং সহ-প্রযোজক পিটার হিলডাল, পেদ্রো বোর্হেস, আদনান ইমতিয়াজ আহমেদ ও রুবাইয়াত হোসেন। প্রথম ছবি মেহেরজান (২০১১) এবং দ্বিতীয় ছবি আন্ডার কনস্ট্রাকশন (২০১৫)-এর পর এটি রুবাইয়াত হোসেনের তৃতীয় ছবি।

বাংলাদেশের খনা টকিজ ও ফ্রান্সের লা ফিল্মস দ্য এপ্রেস-মিডির ব্যানারে নির্মিত ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ এর পরিবেশনা ও আন্তর্জাতিক বিক্রয় প্রতিনিধি ফ্রান্সের পিরামিড ফিল্মস। আমেরিকায় ছবিটির পরিবেশক আর্টম্যাটান ফিল্মস।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ