আজ ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

https://jatiyobarta.com/wp-content/uploads/2020/12/মাহফুজুর-রহমান-গাইতে-পারলে-হিরো-আলম-কেন-পারবে-না.jpg
মাহফুজুর রহমান গাইতে পারলে হিরো আলম কেন পারবে না?

মাহফুজুর রহমান গাইতে পারলে হিরো আলম কেন পারবে না?

সমালোচনার জবাব দিলেন ‘গায়ক’ হিরো আলম। উল্টো প্রশ্ন তুললেন, ‘সবাই পারলে আমি হিরো আলম কেন পারবো না?’

সম্প্রতি গায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটেছে নায়ক হিরো আলমের। এতে ভীষণভাবে সমালোচিত হয়েছেন তিনি। সমালোচনা এবং তিনি যেন প্রায় সমার্থক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত হিরো আলমের কোনো কাজই সমালোচনার উর্ধ্বে ছিল না। যদিও এ নিয়ে তার কোনো ভাবান্তর নেই। সব কিছুকে থোরাই কেয়ার করে মিউজিক ভিডিওর মডেল, টেলিফিল্মের অভিনেতা, বড় পর্দার নায়ক এবং সর্বশেষ গায়ক হিসেবেও তিনি আত্মপ্রকাশ করেছেন। তার ভাষ্য মতে- আমি যাই করি তাই হাস্যকর। আমি যা করি তাই দোষ। অন্যরা করলে দোষ নেই।

আরও পড়ুনঃ বরগুনায় প্রতিশোধ নিতে ছাগলের পেটে ছুরি বসালেন নির্দয় শিক্ষক

Advertisements

বিষয়টির ব্যাখ্যা দিয়ে এই প্রতিবেদককে হিরো আলম বলেন, ‘গান নিয়ে নেগেটিভ-পজিটিভ দুটোই পেয়েছি। তবে নেগেটিভই বেশি বলেছে মানুষ। কিন্তু গান আসলে শখ করে করা। আমি তো গানের শিল্পী না। ড. মাহফুজুর রহমান, নুসরাত ফারিয়া, চঞ্চল চৌধুরী, ফজলুর রহমান বাবু গান গেয়েছেন। তারাও কিন্তু গানের শিল্পী না। অথচ তারাও গান গেয়েছেন।’

আরও পড়ুনঃ নববধূর গোসলের ভিডিও ধারণ করায় বখাটেকে গ্রেফতার

কিন্তু তারা তো সমালোচিত হননি। বিষয়টি মনে করিয়ে দিলে আলম বলেন, ‘মাহফুজুর রহমান গাইতে পারলে আমি কেন পারবো না? তাছাড়া এই গান আমি বাইরে কোথাও দেব না। নিজের চ্যানেলে আপলোড করবো। আমি নিজেই গানের মডেল হবো। স্বীকার করছি গানের জন্য আমার কোনো প্রস্তুতি ছিল না।’

গানটি প্রকাশের পর তুমুল বিতর্কে পড়েন হিরো আলম। এ প্রসঙ্গে তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ‘আমার জীবনটাই হাস্যকর। আমি নির্বাচন করতে গেলাম। লোকজন হাসলো। আমি সিনেমা বানাতে এলাম, তাতেও লোকজন হাসলো। এখন গান গাইতে এলাম, তাতেও মানুষ হাসছে। আমি যা করি তাই দোষ! আমাকে নিয়ে মানুষ হাসে। তাহলে আমি কি কিছুই করবো না?’

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ