আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশি যুবককে হত্যার ১৪ দিন পর মরদেহ ফেরত দিলো বিএসএফ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তের ভারতের ভূখণ্ডে আবুল কাশেম (৩৫) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে গুলি করে হত্যার ১৪ দিন পর মরদেহ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। শুক্রবার (২৮ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার চল্লিশপাড়া সীমান্তের ৮৫/১০ (এস) সীমান্ত পিলার সংলগ্ন নো ম্যান্স ল্যান্ডে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে মরদেহটি ফেরত দেয়া হয়।

পতাকা বৈঠকে বিএসএফের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার ১৪১ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের জলঙ্গী ক্যাম্পের অধিনায়ক এসি বলরাম সিং। এ সময় জলঙ্গী থানা পুলিশের পক্ষে এসআই খুরশিদ আলম উপস্থিত ছিলেন। বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়নের মহিষকুণ্ডি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন। উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর থানার ওসি নিশিকান্ত। পরে নিহতের পরিবারের পক্ষে ছোট ভাই মিঠু মরদেহ বুঝে নেন।

গত ১৪ আগস্ট রাতে আবুল কাশেম দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চল্লিশপাড়া সীমান্তে ভারতের ভূখণ্ডে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করলে বিএসএফ তাকে গুলি করে হত্যা করে। নিহত আবুল কাশেম দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চল্লিশপাড়া সীমান্ত এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে।

Advertisements

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ