আজ ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ফেসবুকে প্রেম! যুবককে বিয়ে করে দুই স্বামীকে নিয়ে ‘সংসার’ গৃহবধূর

সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগাযোগ। সেই সূত্র ধরে প্রেম, ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। শেষমেশ কুচবিহার থেকে সোজা বিবাহিত প্রেমিকার বাড়ি এসে হাজির প্রেমিক। তারপর মন্দিরে লুকিয়ে বিয়ের পর দুই স্বামীকে নিয়েই ওই নারী এক বাড়িতে থাকতে শুরু করেন বলে দাবি পাড়া প্রতিবেশীর। আরও অভিযোগ, প্রেমিকের সঙ্গে জোট বেঁধে আগের স্বামীর উপর অত্যাচারও শুরু করে ওই নারী।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বেহালার শিশির বাগানে। এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাস। অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত প্রেমিক পরিতোষ মণ্ডলকে আটক করেছে বেহালা থানার পুলিশ। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

বেহালার শিশিরবাগানের গৃহবধূ সোমা দাসের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ হয় কোচবিহারের যুবক পরিতোষ মণ্ডলের। আলাপ থেকে প্রেম। ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে যুগলের মধ্যে। এরপরই কোচবিহার থেকে সোজা শিশিরবাগানে সোমা দাসের বাড়িতে এসে হাজির হয় পরিতোষ মণ্ডল নামে ওই যুবক।

Advertisements

অভিযোগ, তারপর থেকেই যুগলে মিলে প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাসের উপর অত্যাচার শুরু করে। নানাভাবে মানসিক নির্যাতন করা হয়। এলাকাবাসী জানিয়েছে ওই দম্পতির ১৬ বছরের এক পুত্রসন্তান আছে। এদিকে ওই নারী গত পরশু কৌশিকী আমাবস্যার দিনে বাড়ির পাশেই এক মন্দিরে প্রেমিক কোচবিহারের যুবককে বিয়ে করেন।

বিয়ে করে দ্বিতীয় স্বামীকে নিয়ে একইসঙ্গে ঘরে থাকতেও শুরু করেন সোমা দাস নামে ওই নারী। তার সঙ্গে  প্রতিদিন চলতে থাকে প্রথম স্বামী মনোজিৎ দাসের উপর অত্যাচার। অবশেষে আজ প্রেমিক পরিতোষ মণ্ডলকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন স্থানীয়রা।

 

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ