আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রাইভেট শিক্ষককে দোষী করে চিরকুট লিখে আত্মহত্যা

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সুমাইয়া আক্তার (২০) নামে অনার্স পড়ুয়া ছাত্রী গলায় ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়নের ষাটকাহন গ্রামে নিজ ঘর থেকে সুমাইয়ার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সুমাইয়া উপজেলার ষাটকাহন গ্রামের শামীম মিয়ার মেয়ে। সে কিশোরগঞ্জ সরকারী মহিলা কলেজে গনিত বিভাগের অনার্স ১ম বর্ষেও ছাত্রী ছিল।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো সুমাইয়া রাতে তার ঘরে  ঘুমাতে যায়। সকালে দীর্ঘ সময় সাড়া না পাওয়াতে পরিবারের লোকজন তার ঘরে গিয়ে ডাক দিলেও ভিতর থেকে কোন সাড়া না পাওয়ায় পরে দরজা ভেঙ্গে সুমাইয়ার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

Advertisements

তার বাবা শামীম মিয়া দাবি করে জানান, আমার মেয়ে মরার আগে ফেসবুকে তার প্রাইভেট শিক্ষক রাসেল মিয়াকে দোষী করে একটি চিরকুট লিখে গেছে।

তবে সেই শিক্ষকের সাথে সুমাইয়ার প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে পরিবারের লোকজন ও কলেজের বান্ধবীরা সঠিক তেমন কিছু জানেন না বলে জানান। ফেসবুকে সুমাইয়ার চিরকুট লিখা দেখে শিক্ষককে সন্দেহ করছেন বলে জানান তারা।

পাকুন্দিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজুর রহমান বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মেয়েটির সাথে শিক্ষকের প্রেমের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ