আজ ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ডিম, বিস্কুট খেয়ে ফেলায় গরম রড দিয়ে আঘাত করা হয়!

শিশু শ্রমিককে নির্যাতনের অভিযোগ উঠায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার ইসলামিয়া বেকারিকে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির অভিযোগে বেকারি মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূর-এ-আলম এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নারায়ণপুর বাইপাস এলাকার ইসলামিয়া বেকারিতে গত তিনদিন আগে জুনাইদ নামে ১২ বছরের এক শিশু শ্রমিক নির্যাতনের শিকার হয়। তাকে লোহার গরম রড দিয়ে আঘাতসহ বিভিন্নভাবে শারীরিক নির্যাতন করেন বেকারির প্রধান কারিগর সাবু মিয়া। মঙ্গলবার বিকেলে বিষয়টি স্থানীয় লোকজন ও সাংবাদিকদের নজরে এলে প্রশাসনকে অবহিত করা হয়। পরে বেকারিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত চালানোর পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মালিক মো. বায়েজিদকে থানায় নিয়ে আসা হয়।

নির্যাতনের শিকার কুমিল্লার শিশু জুনাইদ পুলিশকে জানায়, তিন দিন আগে কাউকে না জানিয়ে সে একটি ডিম ও বিস্কুট খেয়ে ফেলে। বিষয়টি জানতে পেরে কারিগর সাবু মিয়া তাকে গরম রড দিয়ে আঘাত করে। এর আগেও কাজ না পারার অজুহাতে তার ওপর নির্যাতন চালানো হতো।

Advertisements

তবে বেকারি মালিক মো. বায়েজিদ জানান, তিনি ওই শিশু শ্রমিককে কোনো ধরনের মারধর করেননি। শিশুকে মারধরের বিষয়টি জানার পর তাকে চিকিৎসাও করানো হয়। অভিযুক্ত কারিগর সাবু মিয়াকে এ জন্য অনেক কটু কথা বলা হয়েছে।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রসুল আহমেদ নিজামী জানিয়েছেন, বেকারি কারিগর সাবু মিয়া ওই শিশুটিকে নির্যাতন করে। এ ঘটনায় বেকারি মালিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। শিশুটির অভিভাবককে খবর দেওয়া হয়েছে। তাঁদের পক্ষ থেকে অভিযোগ দিলে সে অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ