আজ ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

টিকটকে অশ্লীল ভিডিও পোস্ট করায় কারাগারে ৫ নারী

স্বল্প দৈর্ঘের ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে আপত্তিকর ভিডিও পোস্ট করায় মিশরের পাঁচ নারী কড়া শাস্তির মুখে পড়েছেন। ওই পাঁচ নারীকে ২ বছরের জেলের সাজা দিয়েছেন আদালত। জানা গেছে, সমাজের নৈতিকতা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে তাদেরকে এই শাস্তি দিয়েছেন বিচারপতি। খবর আলজাজিরা।

খবরে আরও বলা হয়, হানিন হোসাম, মওদা আল-আধম সহ আরও তিন নারী ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটকে কিছু অশ্লীল ভিডিও পোস্ট করেন। সেই ভিডিও-র ভিত্তিতেই ওই পাঁচ জনের বিরুদ্ধে ২ বছরের কারাদণ্ডের শাস্তি দেয়া হয়েছে। অবশ্য প্রত্যেকে এই রায়ের বিরুদ্ধে ৩ লক্ষ মিশরীয় পাউন্ড দিয়ে আপিল করতে পারবেন। বিচারক সম্প্রতি এই মামলার রায় দিলেও মামলা চলছিল বেশ কয়েক মাস ধরে। গত এপ্রিল মাসে হানিন হোসামকে গ্রেফতার করা হয়। টিকটক অ্যাকাউন্টে ১.৩ মিলিয়ন ফলোয়ারকে ৩ মিনিটের একটি ভিডিও পোস্ট করে সে জানিয়েছিল, তার অনুগামীরাও তার সঙ্গে কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারে। মে মাসে গ্রেফতার হয় আল-আধম। ব্যঙ্গাত্মক ভিডিও পোস্ট করার জন্য তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। টিকটকে তার ফলোয়ার রয়েছে প্রায় ২ মিলিয়ন।

এই গ্রেফতারিতে মিশরে মানুষের সামাজিক স্বাধীনতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কেউ কেউ বলছেন যেহেতু ওই নারীরা নিম্নবিত্ত পরিবার থেকে উঠে এসেছে তাই তাদের সঙ্গে চক্রান্ত করে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

Advertisements

উল্লেখ্য, এসব ব্যাপারে মিশরে নিয়ম কানুন অতন্ত কড়া। জাতীয় সুরক্ষার জন্য হুমকিস্বরূপ বলে চিহ্নিত করে সেগুলিকে ব্লক করা ও ৫ হাজারের ফলোয়ার থাকলে সেই অ্যাকাউন্ট পর্যবেক্ষণ করার অনুমতি সহ ইন্টারনেটে নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে একাধিক আইন রয়েছে।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ