আজ ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

টিউবওয়েলের পানি খেয়ে করোনামুক্তির আশায় শত শত মানুষের ভিড়

গত ৪ দিন ধরে মেহেরপুরের একটি টিউবওয়েল থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পানি বের হচ্ছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে।ওই পানি পান করলেই ক্যানসারসহ করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি মিলবে বলেও গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। দূর-দূরান্ত থেকে ওই পানি নিতে শত শত মানুষ ভিড় করছে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের সাধু গুরু ভক্ত আনারুলের ফকিরের আস্তানায়।

জানা গেছে, আনারুল ফকিরের বাসার একটি টিউবওয়েল থেকে বৈদ্যুতিক মোটর বা হাতের চাপ ছাড়াই অবিরতভাবে পানি পড়ছে। সেই থেকে প্রতারণা ব্যবসার ফন্দি আঁটছে একটি চক্র।

ভবানীপুর গ্রামের মাথাভাঙ্গা নদীর পাড়ে এক বটবৃক্ষের নিচে আনোরুল ফকিরের আস্তানা। আর নদীর পাড়েই বসানো আছে টিউবওয়েলটি। এটা দিয়েই চারদিন আগে হঠাৎ পানি উঠতে শুরু করে। এলাকার লোকজন এটিকে আল্লাহর নেয়ামত বলে মনে করে। এর পানি পান করলে রোগমুক্তি হবে ভেবে পানি নেওয়া শুরু করেন। অনেকেই রোগমুক্তির প্রচারণা চালানোর পর ভবানীপুর ও আশেপাশের এলাকার লোকজন পানি নিতে ভিড় জমায়।

Advertisements

টিউবওয়েলের মালিক আনারুল ফকির জানান, পানি বের হওয়ার বিষয়টি ছেলেরা মোবাইলে ভিডিও করে ফেসবুকে দেওয়ায় এখন লোকজন পানি নিতে আসছে। বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষে পানি নিয়ে যাচ্ছেন। আবার কেউবা ওখানে নিয়ত করেই পানি পান করছেন।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম রিয়াজুল আলম বলেন, ‘এ পানিতে রোগ নিরাময় হবে এ ধরনের কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। বরং এ পানিতে আর্সেনিক থাকতে পারে। পানি পান করার পর যদি ডায়রিয়া ও  রোটা ভাইরাস ইনফেকশন হয় তাহলে তা জনগণের জন্য দুর্ভোগ বয়ে আনবে।’

 

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ