আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

এবার বিশ্বের চতুর্থ ধনী এলন মাস্ক! কে এই এলন মাস্ক?

সম্পদ কমার কোনো লক্ষণ নেই বরং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অর্জন বাড়ছে তার। ফোর্বসর একটি পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, সোমবার তার প্রতিষ্ঠান টেসলারের শেয়ারের দাম ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ার পরই বিশ্বের চতুর্থ ধনী ব্যক্তির তালিকায় তার নাম উঠে আসে।

একদিনেই তার সম্পদ ৮ বিলিয়ন ডলার বেড়ে যাওয়ায় বর্তমানে তিনি ৮৪.৮ বিলিয়ন ডলারের মালিক। ধনকুবের বেরনার্ড আর্নল্টকে সরিয়ে চতুর্থ স্থান দখল করেছেন এলন মাস্ক। বর্তমানে বেরনার্ডের সম্পদের পরিমাণ ৮৪.৬ বিলিয়ন ডলার।

বিপুল পরিমাণ অর্থ-বিত্তের অধিকারী ৪৯ বছর বয়সী এই উদ্যোক্তা বিশ্বের অভিজাত পাঁচজন ধনীর তালিকায় নাম লিখিয়েছেন। তার আগে থাকা বাকি তিন ধনকুবের হলেন জেফ বেজোস, বিল গেটস এবং মার্ক জুকারবার্গ।

Advertisements

বর্তমানে জেফ বেজোসের অর্থের পরিমাণ ১৮৮ বিলিয়ন ডলার, বিল গেটসের ১২১ বিলিয়ন ডলার এবং মার্ক জুকারবার্গের অর্থের পরিমাণ ৯৯ বিলিয়ন ডলার।

এদিকে, সাম্প্রতিক সময়ে টেসলা এবং স্পেসএক্স দুই প্রতিষ্ঠানই সফলভাবে তাদের কার্যক্রম এগিয়ে নিচ্ছে। এই দুই প্রতিষ্ঠান থেকেই অনেক বেশি আয় বেড়েছে এলন মাস্কের। ব্লুমবার্গ বলছে, চলতি বছর টেলসার শেয়ার ৩শ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

করোনা মহামারির কারণে অনেক প্রতিষ্ঠানের মালিকের যখন পথে বসার মতো অবস্থা তখন ভাগ্য সুপ্রসন্ন এলন মাস্কের। ২০২০ সালে হঠাৎ করেই সম্পদ বৃদ্ধির এটি দ্বিতীয় ঘটনা। এর আগে জেফ বেজোসের সম্পদও এভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

কে এই এলন মাস্ক?

ইলন রিভ মাস্ক একজন দক্ষিণ আফ্রিকান প্রকৌশলী ও প্রযুক্তি খাতে উদ্যোক্তা।তিনি মহাকাশ ভ্রমণ সংস্থা স্পেসএক্সের সিইও এবং সিটিও, বৈদ্যুতিক গাড়ির প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান টেসলা মোটরসের সিইও ও পণ্য প্রকৌশলী, সোলারসিটির চেয়ারম্যান, দিবোরিং কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা, নিউরালিংকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা, ওপেনএআইয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান এবং পেপ্যালের একজন সহ-প্রতিষ্ঠাতা।এছাড়াও তিনি হাইপারলুপ নামক কল্পিত উচ্চ গতিসম্পন্ন পরিবহন ব্যবস্থার উদ্ভাবক।

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ