আজ ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে জীবিত শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা!

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের পাশের সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক মায়ের আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে জীবিত শিশুকে মৃত বলে রিপোর্ট দিয়েছেন ডা. রসনা বর্মন রোজ।

রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) রোগী সূত্রে জানা যায়, ‘শুক্রবার বিকেলে জয়ন্ত তার স্ত্রী লিপি রাণীকে (২৮) নিয়ে ঠাকুরগাঁও সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আসেন স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে। সুরক্ষা ডায়গোনোস্টিক সেন্টারের ডা. রসনা বর্মন রোজ জরুরিভাবে আল্ট্রাসনোগ্রাম পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন। পরে ডা. রসনা নিজেই আল্ট্রাসনোগ্রাম পরীক্ষা করে পেটের বাচ্চাকে মৃত বলে লিখিত রিপোর্ট দেন এবং বাচ্চা অপসারণের জন্য দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন। রোগী এই রিপোর্টে সন্তুষ্ট না হয়ে অপর আরেকটি বেসরকারি ডায়গনস্টিক সেন্টারে আবারও আল্ট্রাসনোগ্রাম করালে ডা. মো. শাহ আজমির রাসেল পেটের বাচ্চা জীবিত এবং সুস্থ্য আছে বলে রিপোর্ট দেন। এরপর গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. এম আর রেজাকে দেখালে তিনিও একই মত দেন এবং প্রসূতি মায়ের জরায়ু মুখ খুলে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই প্রসব করানোর প্রস্তুতি নিতে বলেন। গাইনি ডাক্তারের পরামর্শ মতে রোগীর অভিভাবক সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করলে সেদিন রাতেই সুস্থ বাচ্চা প্রসব করেন লিপি রাণী।’

লিপি রাণীর স্বামী জয়ন্ত জানান, ‘আমার স্ত্রীর আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে সন্তানকে মৃত ঘোষণা করলে আমার তা বিশ্বাস না হওয়ায় অন্য একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে পরীক্ষা করি এবং আমার স্ত্রী সন্তানকে সুস্থ অবস্থায় ফিরে পাই।’

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার জানান, ‘লিখিত অভিযোগ পেলে এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Advertisements

     এই বিভাগের আরও খবর দেখুনঃ